জন্ম পর্যটন ও ৬ দেশের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের ভ্রমণ ভিসা নিষেধাজ্ঞা

0
86

মিয়ানমার, কিরঘিস্থান, ইরিত্রিয়া,নাইজেরিয়া,সুদান ও তানজানিয়ার মতো কয়েকটি দেশ যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে ভিসা লাভের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে চলেছে তবে এটি পূর্ণাঙ্গ কোনো ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা নয় ।

মিয়ানমার ও নাইজেরিয়াসহ নতুন ছয়টি দেশের ওপর বিধিনিষেধ দিয়ে বিস্তৃত ভিসা নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবারের ওই আদেশে বলা হয়, সুদান ও তানজানিয়ার নাগরিকদের জন্য বন্ধ হবে ‘ডাইভারসিটি ভিসা’। এ নিষেধাজ্ঞার ফলে ইরিত্রিয়া, নাইজেরিয়া, মিয়ানমার ও কিরগিজস্থানের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ কমে আসবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, শুক্রবার এক আদেশে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ৬টি দেশের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। তবে ছয়টি দেশের নাগরিকরা পূর্বের মতোই ভ্রমণ ভিসা, শিক্ষার্থী ও ব্যবসা সংশ্লিষ্ট ভিসা চালু থাকবে।

শুক্রবারের ওই আদেশে ইরান, উত্তর কোরিয়া, লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া, ইয়েমেন ও ভেনেজুয়েলার ওপর পূর্বের নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটির ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি শ্যাড ওলফ জানান, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নিরাপত্তা ও তথ্য-ভাগাভাগি বিষয়ে মান অর্জনে ব্যর্থ হওয়ায় ছয় দেশকে নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হয়েছে।

গত কয়েক বছর নাইজেরিয়া থেকে তুলনামূলক বেশি অভিবাসী নেওয়ায় ট্রাম্পের নতুন এ ঘোষণায় আফ্রিকার এ দেশটিই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে বিশ্লেষকরা ধারণা করছেন।

যুক্তরাষ্ট্র “জন্ম পর্যটন” সম্পর্কিত একটি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ।  এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় যেসব দেশ মার্কিন ভিসায় ছাড়া পায় তাদের ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে না। ৩৯টি ইউরোপীয় দেশ ভিসা ছাড়া পায় ।  অন্যান্য দেশের গর্ভবতী মায়েরা যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে এসে সন্তানপ্রসব করাতে পারবেন না । আগেকার নিয়মে যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে ভুমিষ্ট হলেই তারা নাগরিকত্ব লাভ করতো ।

এই বিষয়ে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, আমেরিকান নাগরিকত্বের অখণ্ডতা রক্ষা করতে হবে। বার্থ টুরিজমের কারণে মূল্যবান হাসপাতালগুলোতে রোগীদের চাপ বেড়ে যায় যা হাসপাতালগুলোর জন্য হুমকি ।

অভিবাসন ঠেকাতে বদ্ধ পরিকর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। এরই অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেওয়া হলো।মার্কিন এক গবেষণা অনুযায়ী , ২০১৬ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত বার্থ টুরিজমের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে ৩৩ হাজার শিশুর জন্ম দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here